নতুন ৬ করোনাভাইরাস শনাক্ত

নতুন ৬ করোনাভাইরাস শনাক্ত

বিজ্ঞান-প্রযুক্তি ডেস্ক:-বিজ্ঞানীরা বাদুরের মধ্যে নতুন করে আরো ৬টি করোনাভাইরাস শনাক্ত করেছেন। নতুন এসব করোনাভাইরাস বর্তমানে বিশ্বে মহামারি সৃষ্টিকারী কোভিড-১৯ রোগের করোনাভাইরাস ‘সার্স-কোভ-২’ গোত্রের।

স্মিথসোনিয়ান গ্লোবাল হেলথ প্রোগ্রামের গবেষক দল মায়ানমারের বাদুরের মধ্যে নতুন করোনাভাইরাসগুলো শনাক্ত করেছেন। এই ভাইরাসগুলো মানুষের মধ্যে সংক্রামিত হওয়ার ঝুঁকি আছে কিনা তা এখনো স্পষ্ট নয়। গবেষকরা আশা করছেন, নতুন এই তথ্য করোনাভাইরাস শনাক্তকরণ, প্রতিরোধ এবং প্রতিক্রিয়া উন্নতি করতে সহায়তা করবে।

গবেষক দলের নেতৃত্বদানকারী মার্ক ভ্যালিটুটো বলেন, ‘ভাইরাসজনিত মহামারি আমাদের স্মরণ করিয়ে দেয় যে, মানুষের স্বাস্থ্য বন্যপ্রাণী এবং পরিবেশের স্বাস্থ্যের সাথে কতটা ঘনিষ্ঠভাবে জড়িত। বিশ্বব্যাপী বন্যপ্রাণীর সঙ্গে মানুষের যোগাযোগ ক্রমাগত বেড়ে চলেছে, সুতরাং আমরা প্রাণীদের মধ্যে এই ভাইরাসগুলো সম্পর্কে যত বেশি জানতে পারবো- কীভাবে এই ভাইরাসগুলো রূপান্ততির হয় এবং অন্য প্রজাতির মধ্যে ছড়িয়ে পড়ে- আমরা তত ভালোভাবে এসবের মহামারি হ্রাস করতে পারবো।’

গবেষণায় গবেষকরা মায়ানমারের বাদুরগুলো থেকে ৭৫০টির বেশি লালা এবং মলের নমুনা সংগ্রহ করেছিলেন। এসব নমুনা বিশ্লেষণে ৬টি নতুন করোনাভাইরাস শনাক্ত করা হয়েছে, অবশ্য এর মধ্যে একটি করোনাভাইরাস আগেই দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় পাওয়া গিয়েছিল।

আশার খবর হচ্ছে, নতুন ভাইরাসগুলো সার্স কোভ-১ বা বর্তমানের কোভিড-১৯ রোগের সার্স-কোভিড-২ ভাইরাস থেকে কিছুটা আলাদা। একই গোত্রের ভাইরাস হলেও এগুলোর জেনেটিক্যাল মডেলে পার্থক্য রয়েছে। তবে নতুন করোনাভাইরাসগুলো মানুষ সহ অন্যান্য প্রজাতির প্রাণীর কাছে ছড়িয়ে পড়তে পারে কিনা তা এখনো পরিষ্কার নয়।

গবেষক দলটির সদস্য সুজান মারে বলেন, ‘বেশিরভাগ করোনাভাইরাস মানুষের জন্য ঝুঁকিপূর্ণ নয়। তবে উত্স অনুসারে আমরা যখন প্রাণীদের মধ্যে এই রোগগুলো শনাক্ত করি, তখন আমাদের সম্ভাব্য ঝুঁকি নিয়ে গবেষণার করার একটি মূল্যবান সুযোগ রয়েছে।’

সম্পাদক ও প্রকাশক: মো: কামাল উদ্দিন
মোবাইল: ০১৮১৯০৩২০৯০
৬০/বি, পুরানা পল্টন, ঢাকা-১০০০ হইতে প্রকাশিত। মোবাইল: 01819032090, ইমেইল: amaderodhikar@gmail.com