পুলিশ বাহিনীর ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হচ্ছে

পুলিশ বাহিনীর ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হচ্ছে

জনগণের সেবা করাই পুলিশের দায়িত্ব। কিন্তু কতিপয় পুলিশ সদস্য তাদের দায়-দায়িত্ব এবং অবস্থান ভুলে গিয়ে জড়িয়ে পড়ছেন নানা অনিয়ম ও অপরাধে। অপরাধীদের সঙ্গে কতিপয় পুলিশ সদস্যের সখ্যের কারণে হয়রানির শিকার হচ্ছেন সাধারণ মানুষ। পুলিশে বিরুদ্ধে ঘুষ গ্রহণ, ক্ষমতার অপব্যবহার, চাঁদাবাজি, দাবিকৃত টাকা না পেয়ে হত্যা, বিচারবহির্ভূত হত্যা, ছিনতাই, ডাকাতি, শ্লীলতাহানির মতো গুরুতর অভিযোগে নতুন নয়। কতিপয় বিপথগামী পুলিশ সদস্যের কারণে এ বাহিনীর ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হচ্ছে।
গতকাল দেশের শীর্ষস্থানীয় একাধিক জাতীয় দৈনিকে এ নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। এতে বলা হয়, সম্প্রতি মিরপুর থানার এসআই জাহিদের হাতে প্রাণ হারাতে হয়েছে ঝুট ব্যবসায়ী মাহবুবুর রহমান সুজন। র‌্যাব অবৈধ অস্ত্রসহ গ্রেফতার হয়েছেন পুলিশের বিশেষ শাখার এসআই আসাদ। ইয়াবা দিয়ে মামলা দেয়ার ভয় দেখিয়ে মকবুল নামের এক ব্যবসায়ীর কাছ থেকে সাড়ে তিন লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে কয়েকজন পুলিশ। শাহ আলম নামের একজনকে সন্ত্রাসী বানিয়ে তার দুই পায়ে গুলি করে এসআই আনোয়ার হোসেন। ১০ অক্টোবর রাতে রাজধানীর ভাষানটেকের গোলটেক বালুর মাঠে স্থানীয় সন্ত্রাসীদের পিটুনিতে খুন হন যুবক নাসির উদ্দিন। মামাতো বোন লাবনীকে উত্ত্যক্ত করার প্রতিবাদ করতে গিয়েই তাকে জীবন দিতে হয়। উত্ত্যক্তের বিষয়টি চাপা দেয়ার চেষ্টার অভিযোগ ওঠে ভাষানটেক থানা ও ফাঁড়ি পুলিশের বিরুদ্ধে। শুধু তাই নয়, প্রতি মাসে অন্তত ১০০ পুলিশের বিরুদ্ধে এবং চলতি বছরের সাড়ে ৯ মাসের ৮৯০টি অভিযোগ এসেছে।
ঘটনাগুলো এবং পরিসংখ্যান পর্যালোচনা করে দেখা যায় পুলিশের ওপর আইন রক্ষার যে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে, অনেক সময় তারা যথাযথভাবে পালন করতে পারছে না। পুলিশের পেশাদারিত্ব ও দক্ষতা যতটুকু আছে তা বস্তুনিষ্ঠভাবে অপরাধ দমনের ক্ষেত্রে বা আইনের শাসনের ক্ষেত্রে অনেক সময়ই ব্যর্থ হচ্ছে। সরকারদলীয় স্বার্থে অনেক সময় তাদের ব্যবহার করা হয়ে থাকে। যার ফলে তাদের যে নৈতিক অবস্থানটা সেটা দুর্বল হয়ে যায় এবং তারা পেশাদারিত্বের সঙ্গে দায়িত্ব পালনে ব্যর্থ হয়। পুলিশ সদস্যদের অতীতের এবং সম্প্রতিক অপরাধ কর্মকা-গুলো ঊর্ধ্বতন মহলকে গুরুত্বসহকারে দেখতে হবে। অনতিবিলম্বে অভিযোগগুলোর সুষ্ঠু তদন্ত সাপেক্ষে অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির আওতায় আনতে হবে। নয়তো রক্ষক ভক্তকে পরিণত হবে। নাগরিক সেবা থেকে বঞ্চিত হবে সাধারণ জনগণ।

সম্পাদক ও প্রকাশক: মো: কামাল উদ্দিন
মোবাইল: ০১৮১৯০৩২০৯০
৬০/বি, পুরানা পল্টন, ঢাকা-১০০০ হইতে প্রকাশিত। মোবাইল: 01819032090, ইমেইল: amaderodhikar@gmail.com